সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবনী BankimChandra Chattopadhyay life story


বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ১৮৩৮ খ্রিষ্টাব্দের ২৬ শে জুন পশ্চিমবঙ্গের চব্বিশ পরগনা কাঠালপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করে।বাংলা ভাষায় প্রথম শিল্পসম্মত উপন্যাস রচনায় কৃতিত্ব তারই।তার পিতা যাদব চন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ছিলেন ডেপুটি কালেক্টর।১৮৫২ খ্রিস্টাব্দে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিএ পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্যে তিনি একজন।
বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের জীবনী 
পেশাগত জীবনে তিনি ছিলেন ম্যাজিস্ট্রেট।খুলনায় ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে যোগদান করেন।তিনি নীলকরদের অত্যাচার দমন করেছিলেন। দায়িত্ব পালনে তিনি ছিলেন নিষ্ঠাবান,যোগ্য বিচারক হিসেবে তার খ্যাতি ছিল।

বাংলা সাহিত্য চর্চায় অসাধারণ সাফল্য অর্জন করেছিলেন তিনি।উপন্যাস ও প্রবন্ধ রচনার বাইরে বঙ্গদর্শন (১৮৭২) পত্রিকা সম্পাদনা ও প্রকাশনার অন্যতম কৃত্তি।১৮৫২ খ্রিস্টাব্দের সংবাদ প্রভাকর পত্রিকায় কবিতা প্রকাশের মাধ্যমে তাঁর সাহিত্যচর্চা শুরু।বঙ্কিমচন্দ্রের গ্রন্থ সংখ্যা ৩৪ টি। তার রচিত প্রথম উপন্যাস "দুর্গেশনন্দিনী"।


তার অন্যান্য উল্লেখযোগ্য উপন্যাস হল কপাল কুন্তলা,মৃণালিনী,বৃষবৃক্ষ,কৃষ্ণকান্তের উইল,চন্দ্রশেখর,আনন্দমঠ,দেবী চৌধুরানী, রাজসিংহ, সীতারাম।Rajmohons wife  নামে একটি ইংরেজি উপন্যাস ও তিনি রচনা করেছেন।


 বঙ্কিমচন্দ্র ধর্ম,দর্শন,সাহিত্য,ভাষা ও সমাজ বিষয়ক অনেক প্রবন্ধ রচনা করেছেন। লোকরহস্য,বিজ্ঞানরহস্য, কমলাকান্তের দপ্তর, সাম্য, কৃষ্ণচরিত্র প্রবন্ধ ইত্যাদি তার গদ্যগ্রন্থ।বাংলা সাহিত্যে অসামান্য অবদানের জন্য তিনি "সাহিত্যসম্রাট" উপাধিতে ভূষিত হন।বঙ্কিমচন্দ্র ১৮৯৪ খ্রিস্টাব্দের ৮ এপ্রিল কলকাতায় মৃত্যুবরণ করেন।
Disqus Comments

ইমেইল সাবস্ক্রিপশন