ওজন কমাতে না খেয়ে থাকছেন? দেখুন এর ক্ষতিকর দিকগুলো

অতিরিক্ত ওজন আমাদের সকলেরই সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। কারণ আমাদের অতিরিক্ত ওজনের ফলে শরীরের ফিটনেস নষ্ট হয় এবং কেউই চায় না অতিরিক্ত ওজন নিয়ে চলাফেরা করতে।সবাই চায় ফুর ফুরে এবং  হালকা পাতলা স্লিম বডি। ওজন কমানোর জন্য আমরা কত কিছুই না করি। তার মধ্যে আমাদের অনেকেরই দেখা যায় ওজন কমানোর জন্য আমরা না খেয়ে থাকি।এবং খুব কম পরিমাণে খাবার খাই এটি আসলে একদমই ঠিক নয়।কারণ কম খাওয়া এবং না খেয়ে থাকার  কারণে আমাদের শরীরের বিভিন্ন জটিল সমস্যা এবং পুষ্টিহীনতা দেখা দিতে পারে।


 তাহলে চলুন আজ আমরা জেনে নেই ওজন কমানোর জন্য না খেয়ে থাকার  ক্ষতিকর দিকগুলো সম্পর্কে-

 পুষ্টিহীনতা-
 অতিরিক্ত ওজন কমানোর জন্য না খেয়ে থাকার ফল হতে পারে পুষ্টিহীনতা।কারণ আমাদের প্রত্যেকের শরীরের নির্দিষ্ট পরিমাণ পুষ্টি উপাদান এবং ক্যালরির প্রয়োজন রয়েছে। যদি আমরা ওজন কমানোর জন্য না খেয়ে থাকি তাহলে আমাদের শরীরে পুষ্টির  অভাব দেখা দিতে পারে। কারণ  আমাদের দেহ প্রয়োজনীয়তার  অনুপাতে খাদ্য উপাদান কম পেলে পুষ্টি হীনতা দেখা দেবে এটাই স্বাভাবিক।
চুলের সমস্যা-
 আমাদের দেহের প্রতিটা অঙ্গের  সুস্থতা এবং সঠিক বেড়ে ওঠার জন্য প্রয়োজন পুষ্টির। এবং সে পুষ্টি আসে আমাদের প্রত্যেক দিনের খাদ্য থেকে। আমরা যদি ওজন কমানোর জন্য না খেয়ে থাকি তাহলে আমাদের পুষ্টির অভাব পূরণ হবে না। আমাদের শরীরের অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের যেমন পুষ্টির প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তেমনি আমাদের চুলের ও পুষ্টি উপাদানের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। যদি আপনি অতিরিক্ত ওজন কমাতে গিয়ে  খাবার খাওয়া কমিয়ে দেন তাহলে আপনার শরীরের সকল পুষ্টি উপাদানের ঘাটতি দেখা দেবে।এবং ফলশ্রুতিতে চুলের গোড়া দুর্বল হয়ে যাবে। এবং চুল তার স্বাভাবিক ক্ষমতা হারিয়ে ফেলবে।ফলে আপনার অন্যতম সৌন্দর্য বৃদ্ধির  উপাদান চুল হারিয়ে আপনি টাক হয়ে যাবেন!

 স্মৃতিশক্তি দুর্বল হয়ে যাওয়া-

 আমরা সকলেই জানি যদি সত্যি সফল রাখবে পুষ্টি উপাদানের কোন বিকল্প নেই। নিয়মিত পুষ্টি গুন সমৃদ্ধ খাবারই  পারে আমাদের ভিটামিনের চাহিদা পূরণ করতে। আপনি যখন  ওজন কমানোর জন্য খাদ্য গ্রহণ কমিয়ে দেবেন তখনই আপনার শরীরে ভিটামিনের ঘাটতি দেখা দেবে।এবং ফলশ্রুতিতে আপনি খুব দ্রুত একটা জিনিস  ভুলে যাবেন। এবং শক্তি ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়বে।

ওজন কমানোর বীপরিতে অতিরিক্ত ওজন বৃদ্ধি করা-

 আপনি যখন ওজন কমানোর জন্য না খেয়ে থাকবেন এবং আপনার অতিরিক্ত ক্ষুধা লাগার পরে  আপনি খাদ্য গ্রহণ করবেন। তখন আপনার দেহ অতিরিক্ত খাদ্য গ্রহণ করতে চাইবে।এবং যার ফলশ্রুতিতে একবারে আপনার অতিরিক্ত খাদ্য গ্রহণ করা হয়ে যাবে। একবারে অতিরিক্ত খাদ্য গ্রহণ  করার কারণে আপনার ওজন কমার বীপরিতে আরো বৃদ্ধি পেতে শুরু করবে।

 শরীর দুর্বল হয়ে যাওয়া-
 শরীরের শক্তি  আসে খাদ্য থেকে। যখন একটি খাদ্য গ্রহণ কমিয়ে দেবে তখন আপনার শরীরের ক্যালরি গ্রহণ কমে যাবে। যার ফলে আপনার শরীর ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়বে।

 ওজন কমাতে আমাদের  না খেয়ে থাকা মোটেই উচিত নয়।বরঞ্চ পুষ্টিকর এবং ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করা উচিত।তেল চর্বি জাতীয় খাবার  অতিরিক্ত ফ্যাট জাতীয় খাবার পরিহার করুন এতে দ্রুত ওজন কমানো সম্ভব। পরিশ্রমের কাজ এবং ব্যায়াম আমাদের ওজন দ্রুত কমিয়ে আনতে সহায়তা করবে। এর ফলে আমাদের  শরীরের ওজন ঠিক থাকবে তেমনি আমাদের শরীরের সকল কিছু নিয়ন্ত্রনে থাকবে  তেমনি আমাদের ফিটনেস বজায় থাকবে।

0 আপনার মতামত প্রদান করুন-:

কমেন্ট করুন!