মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার কি এবং এগুলো আমাদের কি ক্ষতি করে ও এর থেকে বাঁচার উপায়

আমরা সবাই ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার সম্পর্কে সামান্য হলেও জানি।এবং এ নাম টি আগে অনেকবার শুনেছি।আমাদের ব্যবহৃত কম্পিউটার বিভিন্নভাবে ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে। তাই আজ আমরা জানবো ভাইরাস কি, কিভাবে কম্পিউটার ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়, ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হলে আমাদের কম্পিউটারের কি কি ধরনের ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে, ভাইরাস বা ম্যালওয়ারের হাত থেকে বাচার উপায়।
ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার কি এবং এগুলো আমাদের কি ক্ষতি করে ও এর থেকে বাঁচার উপায়  চলুন দেখে নেওয়া যাক-
ভাইরাস বা ম্যালওয়ার কি?
ভাইরাস বা ম্যালওয়ার কি?
ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার হচ্ছে এমন একটি প্রোগ্রাম যা আমাদের কম্পিউটারে প্রবেশ করার মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের ক্ষতি সাধন করে থাকে। এবং এটি থাকে ব্যবহারকারীর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণের বাইরে। এছাড়া ব্যবহারকারি বুঝতেও পারেনা তারা কম্পিউটার ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে কিনা।কারণ এটি তার কাজ চালিয়ে যায়  কম্পিউটারের  অভ্যান্তরীণ অন্যান্য অ্যাপস বা সফটওয়্যার এর মাধ্যমে।এটি আলাদা কোন সফটওয়্যার বা এপ্লিকেশন হিসেবে থাকে না। যার ফলে ব্যবহারকারী বুঝতেও পারেনা যে তার কম্পিউটারে ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে কিনা।
ভাইরাস আমাদের কম্পিউটারের সকল ক্ষতি করে ।
ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার আমাদের কম্পিউটারে কি কি ধরনের ক্ষতি করে থাকে-
ভাইরাস আমাদের কম্পিউটারের বিভিন্ন ধরনের ক্ষতি করে থাকে যেরকম কম্পিউটারের হার্ডওয়ার কে দুর্বল করে দেওয়া। কম্পিউটারের অভ্যন্তরীণ সমস্যা সৃষ্টি করা। বিভিন্ন সফটওয়্যার বা ফাইল কে নষ্ট করে দেওয়া। ডাটা চুরি অর্থাৎ আপনার কম্পিউটারের ডাটা আপনার বিনা অনুমতিতে অন্য কোন সার্ভারে প্রেরণ করা। যা থাকে সম্পূর্ণ হ্যাকার বা ভাইরাস টি যে তৈরি করেছে তার নিয়ন্ত্রণে।যেহেতু এটি তৈরি করা হয়েছে মানুষের ক্ষতি সাধন করার লক্ষ্যে।সে ক্ষেত্রে বুঝে নিতে হবে ভাইরাসটির কোনো না কোনো ক্ষতি অবশ্যই করছে আপনার। তবে ভাইরাসের প্রকারভেদ ও খতিব ভিন্নতা দেখা দিতে পারে। বিভিন্ন কাজের জন্য বিভিন্ন ধরনের ভাইরাস তৈরি করা হয়। এর ভিতরে কতগুলো আছে কম শক্তিশালী।আবার কতগুলো আছে ভয়ানক ক্ষতিকর হয়ে দাঁড়াতে পারে।
কম্পিউটার ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হলে বোঝার উপায় ।
কিভাবে বুঝবেন আপনার কম্পিউটারটি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে কিনা-
 স্বাভাবিকভাবে ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে কিনা সেটি বোঝা খুবই দুস্কর। তবে কিছু কিছু লক্ষণ থেকে বুঝতে পারেন আপনার  কম্পিউটারে কি ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে।যেমন বিভিন্ন এপ্লিকেশন অটোমেটিক চালু হয়ে যাওয়া।ফাইলগুলো খুলতে না পারা ইত্যাদি। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের এন্টিভাইরাস পাওয়া যায় যার মাধ্যমে জানা যায় কম্পিউটারে ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে কিনা। এবং এ সকল অ্যান্টিভাইরাস এর মাধ্যমে ভাইরাসকে নিষ্ক্রিয় করা যায়। তবে ভাইরাস এর হাত থেকে বাঁচতে আপনার সচেতন থাকা অত্যন্ত জরুরী।
ভাইরাস যেভাবে প্রবেশ করে কম্পিউটারে
ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার কিভাবে আপনার কম্পিউটারে প্রবেশ করতে পারে-
 ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার বিভিন্নভাবে আপনার কম্পিউটারে প্রবেশ করতে পারে। তার মধ্যে অন্যতম উপায় হচ্ছে ফাইল আদান প্রদানের সময়। আপনি যদি কারো কাছ থেকে কোন ফাইল গ্রহণ করেন এবং তার কম্পিউটারটি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে আপনার কম্পিউটারটি ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেকাংশে বেড়ে যায়। এছাড়া ইন্টারনেট ব্রাউজিংয়ের সময় ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে। যেমন আপনি ইন্টারনেট থেকে কোন ফাইল ডাউনলোড করলেন যেটি বিশ্বস্ত কোন সাইট নয়। ওই সাইটে যদি কোন ভাইরাসের সমস্যা থেকে থাকে তাহলে আপনার কম্পিউটার টি ও ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে। কারণ ঐ সেট থেকে আপনি যে ফাইল ডাউনলোড করবেন তার মাধ্যমে আপনার কম্পিউটারে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়বে।
ভাইরাস বা ম্যালওয়ার থেকে বাঁচার উপায়
ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার এর হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার কয়েকটি উপায়-
ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার সবচাইতে কার্যকরী উপায় হচ্ছে আপনার সচেতনতা অবলম্বন করা। আপনি যদি কম্পিউটার ব্যবহারের ক্ষেত্রে সচেতন হন তাহলে আপনার কম্পিউটার ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেকাংশে কমে যায়।যেসকল সতর্কতাঃ আপনি গ্রহণ করতে পারেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, কারো সাথে ফাইল আদান প্রদানের সময় সতর্ক থাকা। এবং ভালোভাবে খোঁজ নেওয়া তার কম্পিউটারটি কোন প্রকার ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত কিনা। বা তার কম্পিউটারে ভাইরাস থাকার আশঙ্কা রয়েছে কিনা। ইন্টারনেট ব্যবহার সংক্রান্ত বিষয়ে সর্তকতা অবলম্বন করা। কোন অবিশ্বস্ত সাইট থেকে কোন কিছু ডাউনলোড করা থেকে বিরত থাকা। অযাচিত কোন যদি কোন প্রকার লিংক দেয় সে গুলোতে প্রবেশ না করার।আপনি এন্টিভাইরাস ব্যবহার করতে পারেন।অনেক নামিদামি এন্টিভাইরাস আছে যেগুলো ভাইরাসের আক্রমণের হাত থেকে কম্পিউটারে রক্ষা করে। এরমধ্যে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য এন্টিভাইরাস হলো ক্যাস্পারস্কি, avast  ইত্যাদি।

 ইত্যাদি এই সকল সর্তকতা অবলম্বন করলে আপনি ভাইরাসের আক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকতে পারবেন।  কম্পিউটার ব্যবহারের  ক্ষেত্রে সচেতন হোন এবং ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার আক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পান।
Disqus Comments

ইমেইল সাবস্ক্রিপশন