প্রতিটি দেশেই গাড়ি ব্যাবহারের জন্য কতগুলো নির্দিষ্ট নিয়মকানুন রয়েছে। যেমন ড্রাইভিং লাইসেন্স, গাড়ির লাইসেন্স একই সাথে গাড়ি জন্য বিমা করাও প্রতিটি দেশের আইনে বাধ্যতামূলক। আমাদের আজকের আলোচনার প্রধান বিষয় হচ্ছে গাড়ির বীমা বা ইন্সুইরেন্স কি? মোটর বীমার প্রকারভেদ এবং গাড়ির ইন্সুইরেন্স করার ক্ষেত্রে যেসকল বিষয় লক্ষ রাখা উচিত!

online car insurance
গাড়ির বীমা কি (what is car insurance):

 গাড়ি বা মোটরযান চলাচলের ক্ষেত্রে দুর্ঘটনার কোন নিশ্চয়তা নেই। এবং মোটরযান এর ক্ষেত্রে দূর্ঘটনার ফলে একদিকে যেমন গাড়ির মালিক পক্ষের ক্ষতি সাধন হতে পারে ঠিক তেমন তৃতীয় পক্ষের ক্ষতি সাধন ও হতে পারে। এক্ষেত্রে একটি বিশাল আর্থিক ঝুঁকির আশংকা দেখা যায়। এক্ষেত্রে মোটর বীমা (car insurance) এমন একটি পলিসি যা দূর্ঘটনার ফলে সৃষ্ট ক্ষতির ক্ষতিপূরণ দিয়ে থাকে কার ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি (car insurance company)!

প্রতিটি দেশের আইন অনুযায়ী গাড়ির ইন্সুরেন্স করা বাধ্যতামূলক। তাই আপনাকে যদি গাড়ি ব্যবহার করতে হয় তাহলে অবশ্যই এ সকল আইন মেনে আপনার গাড়ির জন্য ইন্সুরেন্স করতে হবে। ইন্সুরেন্স বা বীমা ব্যতীত মোটর যান চলাচলের ক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন ধরনের আইনি জটিলতায় পড়তে পারেন।

গাড়ির বীমার প্রকারভেদ (Types of car insurance):

প্রধানত দুই ধরনের গাড়ির বীমা পলিসি রয়েছে (There are two main types of car insurance Policy)। এগুলো হলো- 

১: প্রথম পক্ষ বা কম্প্রিহেনসিভ ইন্সুরেন্স পলিসি (First party or comprehensive insurance policy). 

২: তৃতীয় পক্ষের বীমা পলিসি (Third party insurance policy)

উপরোক্ত দুই ধরনের বীমা পলিসি রয়েছে। এবং এই দুই ধরনের কোন কলেজের ভিতরে শব্দগত ভিন্নতা রয়েছে। তাই আপনাকে বীমা করার পূর্বে জানতে হবে আপনি কোন ইন্সুরেন্স পলিসি বেছে নেবেন। এবং কোন ইন্সুরেন্স পলিসি তে কোন কোন ধরনের সুবিধা আপনি পেতে পারেন।


১: প্রথম পক্ষ বা কম্প্রিহেনসিভ ইন্সুরেন্স পলিসি (First party or comprehensive insurance policy):

এই বীমা পলিসি তে বীমা কোম্পানি শুধুমাত্র দুর্ঘটনা বা অন্যান্য ক্ষতির কারণে প্রথম পক্ষের যে সকল ক্ষয়ক্ষতি হয়ে থাকে তার আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিয়ে থাকে। যেমন গাড়ির মালিকের দুর্ঘটনাজনিত কারণে এই চিকিৎসা চিকিৎসার খরচ এবং গাড়ির কোনো ক্ষয়ক্ষতি হলে তার আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিয়ে থাকে। এবং এই বীমা পলিসি তে দুর্ঘটনাজনিত কারণে তৃতীয় পক্ষের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হলে তার কোনো ক্ষতিপূরণ বীমা কোম্পানির পরিশোধ করে না।


২: তৃতীয় পক্ষের বীমা পলিসি (Third party insurance policy):

এই বীমা পলিসি এর মাধ্যমে বীমা কোম্পানি কোন দুর্ঘটনার কারণে তৃতীয় পক্ষের কোনো ক্ষয়ক্ষতি বা সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হলে তার ক্ষতিপূরণ দিয়ে থাকবে। এবং দুর্ঘটনাজনিত কারণে আইনি জটিলতার সাপোর্ট দিয়ে থাকে। তবে এই বীমা পলিসি তে দুর্ঘটনাজনিত কারণে প্রথম পক্ষের দ্বারা মোটরযানের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হবে তার কোন রোগ ক্ষতিপূরণ দেয় না বীমা কোম্পানি।


গাড়ির বীমা করার ক্ষেত্রে যে সকল বিষয় আমাদের মাথায় রাখতে হবে:

গাড়ির বীমা করার পূর্বে আমাদের অবশ্যই খেয়াল রাখা উচিত বীমা কোম্পানি আমাদের কোন কোন কভারের দিয়ে থাকবে। যেমন চিকিৎসা খরচ।  বীমা করার পূর্বে আমাদের দেখে নেওয়া উচিত বীমা কোম্পানি কোনরূপ দুর্ঘটনা হলে তার চিকিৎসা খরচ বহন করবে কিনা তা উল্লেখ রয়েছে কিনা জেনে নেওয়া উচিত। তৃতীয় পক্ষ ক্ষয়ক্ষতির ক্ষেত্রে যে সকল সুবিধা প্রদান করবে সেসব ভালোভাবে জেনে তারপর বীমা করা উচিত।

সম্পদের ক্ষয়ক্ষতির ক্ষেত্রে বীমা কোম্পানি কোন ধরনের ক্ষতিপূরণ দেবে তা অবশ্যই জেনে নিতে হবে। এছাড়াও দুর্ঘটনা বহির্ভূত ক্ষেত্রে আরও অনেক ধরনের ক্ষয়ক্ষতি থাকে। যেমন প্রাকৃতিক দুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতি, দাঙ্গা ফ্যাসাদ এর কারণে গাড়ির ক্ষতি সাধন হওয়া, আগুন ইত্যাদি ক্ষেত্রে কোনরুপ ক্ষতিপূরণ দেবে কি না জেনে নেওয়া!

কিভাবে গাড়ির বীমা করবো (How to get car insurance): 

গাড়ির ইন্সুরেন্স করার ক্ষেত্রে আমাদের বীমা কোম্পানির (car insurance providers) কাছে যেতে হবে যারা গাড়ির বীমা সেবা প্রদান করে। আপনি দুইটি উপায়ে বীমা পলিসি গ্রহন করতে পারেন। প্রথমত বীমা কোম্পানির অফিসে গিয়ে এছাড়াও অনেক বীমা কোম্পানি অনলাইনে বীমা সেবা (online car insurance policy)  প্রদান করে থাকে। সেখান থেকে আপনি অনলাইনে ও বীমা পলিসি গ্রহণ করতে পারেন (get car insurance online)!

নবীনতর পূর্বতন
close